Breaking News
Home / হিসাববিজ্ঞান নবম দশম শ্রেণি / জাবেদা / উত্তোলন সংক্রান্ত জাবেদা | উত্তোলন হিসাব সংক্রান্ত লেনদেনের জাবেদা দাখিলা প্রদান ।

উত্তোলন সংক্রান্ত জাবেদা | উত্তোলন হিসাব সংক্রান্ত লেনদেনের জাবেদা দাখিলা প্রদান ।

সুপ্রিয় শিক্ষার্থী বন্ধুরা, গত পোস্ট -এ আলোচনা করেছিলাম পণ্য ক্রয় সংক্রান্ত লেনদেনের জাবেদা দাখিলার নিয়ম ।  এবার আলোচনা করা হল উত্তোলন সংক্রান্ত লেনদেনের জাবেদা দাখিলার নিয়ম ।  আশা করছি সবার উপকারে আসবে ।

উত্তোলন হিসাব :

ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান হতে মালিক ব্যক্তিগত প্রয়োজনে নগদ অর্থ, পণ্য, সম্পদ ও সুবিধা গ্রহণ করলে উত্তোলন হিসাব -এ লেখা হয় ।  উত্তোলন হিসাব সংক্রান্ত লেনদেনগুলোর জাবেদা দাখিলা সঠিকভাবে প্রদানের জন্য আমাদের জানতে হবে এটি কোন হিসাবের অংশ। আমরা যদি হিসাব সমীকরণ (A=L+E) পর্যালোচনা করি তাহলে দেখতে পাব যে, এর তিনটি উপাদান রয়েছে যথা:

A=Assets(সম্পদসমূহ),
L=Liabilities(দায়সমূহ),
E= Equity(মালিকানা স্বত্ব)
আবার, মালিকানা স্বত্বকে প্রভাবিত করার চারটি উপাদান রয়েছে, সেগুলো হল:

  • মালিকের মূলধন
  • আয়
  • উত্তোলন
  • ব্যয়/খরচ

অর্থাৎ মালিকানা স্বত্ব বেড়ে যায় মালিকের মূলধন ও আয়ের মাধ্যমে, কমে যায় উত্তোলন ও খরচের মাধ্যমে ।
অর্থাৎ Equity(মালিকানা স্বত্ব)= (C+R-Ex-D)
এখানে,
C=Capital(মালিকের মূলধন),
R=Revenue(আয়),
Ex=Expenses(ব্যয়/খরচ),
D=Drawings(উত্তোলন)
সুতরাং হিসাব সমীকরণটিকে বর্ধিত করলে পাওয়া যায়
A=L+(C+R-Ex-D)
ব্যবসায়ে মোট ৫ প্রকার হিসাব পাওয়া যথা:
সম্পদ, দায়, মালিকানা স্বত্ব, আয় ও ব্যয় ।
সুতরাং এখন আমরা বলতে পারি উত্তোলন হিসাব, মালিকানা স্বত্ব হিসাবের একটি অংশ ।

উত্তোলন সংক্রান্ত লেনদেনের জাবেদা দাখিলা প্রদানের নিয়ম:

প্রতিষ্ঠান হতে মালিক ব্যক্তিগত প্রয়োজনে নগদ অর্থ, পণ্য, সম্পদ ও সুবিধা গ্রহণ করলে উত্তোলন হিসাব ডেবিট

ক্রেডিটের জন্যঃ-

মালিক প্রতিষ্ঠান হতে নগদ অর্থ গ্রহণ করলে নগদান হিসাব ক্রেডিট

মালিক ব্যাংক থেকে নগদ অর্থ গ্রহণ করলে ব্যাংক হিসাব ক্রেডিট

মালিক প্রতিষ্ঠান হতে পণ্যদ্রব্য গ্রহণ করলে ক্রয় হিসাব ক্রেডিট

এবার কিছু উদাহরণ লক্ষ্য করা যাক

লেনদেনঃ ব্যক্তিগত প্রয়োজনে নগদ উত্তোলন ৫০০ টাকা ।
জাবেদা দাখিলাঃ

উত্তোলন হিসাব ডেবিট ৫০০ টাকা

নগদান হিসাব ক্রেডিট ৫০০ টাকা

লেনদেনঃ ব্যক্তিগত প্রয়োজনে ব্যাংক হতে উত্তোলন ৫,০০০ টাকা ।
জাবেদা দাখিলাঃ

উত্তোলন হিসাব ডেবিট ৫০০০ টাকা

ব্যাংক হিসাব ক্রেডিট ৫০০০ টাকা

লেনদেনঃ ব্যক্তিগত প্রয়োজনে পণ্য উত্তোলন ৫০০০ টাকা ।
জাবেদা দাখিলাঃ

উত্তোলন হিসাব ডেবিট ৫০০০ টাকা

ক্রয় হিসাব ক্রেডিট ৫০০০ টাকা

লেনদেনঃ ব্যক্তিগত প্রয়োজনে নগদ উত্তোলন ৫০০ টাকা, পণ্য উত্তোলন ১,০০০ টাকা ।
জাবেদা দাখিলাঃ

উত্তোলন হিসাব ডেবিট ১,৫০০ টাকা

নগদান হিসাব ক্রেডিট ৫০০ টাকা

ক্রয় হিসাব ক্রেডিট ১,০০০ টাকা

বিশেষ দ্রষ্টব্য: মোট ডেবিট টাকার পরিমান, মোট ক্রেডিট টাকার পরিমানের সমান হবে ।

লেনদেনঃ ব্যক্তিগত প্রয়োজনে নগদ উত্তোলন ৫০০ টাকা, পণ্য উত্তোলন ১,০০০ টাকা এবং ব্যক্তিগত প্রয়োজনে ব্যাংক হতে উত্তোলন ২,০০০ টাকা ।
জাবেদা দাখিলাঃ

উত্তোলন হিসাব ডেবিট ৩,৫০০ টাকা

নগদান হিসাব ক্রেডিট ৫০০ টাকা

ক্রয় হিসাব ক্রেডিট ১,০০০ টাকা

ব্যাংক হিসাব ক্রেডিট ২,০০০ টাকা

লেনদেনঃ জনাব শওকতের (ব্যবসায়ের মালিক) ব্যক্তিগত খরচ ব্যবসায় হতে পরিশোধ ৪,০০০ টাকা ।
জাবেদা দাখিলাঃ

উত্তোলন হিসাব ডেবিট ৪,০০০ টাকা

নগদান হিসাব ক্রেডিট ৪,০০০ টাকা

লেনদেনঃ মালিক কর্তৃক উত্তোলন ১,০০০ টাকা ।
জাবেদা দাখিলাঃ

উত্তোলন হিসাব ডেবিট ১,০০০ টাকা

নগদান হিসাব ক্রেডিট ১,০০০ টাকা

লেনদেনঃ মালিক ব্যক্তিগত প্রয়োজনে ব্যবসায় হতে ১,৫০০ টাকা নিলেন।
জাবেদা দাখিলাঃ

উত্তোলন হিসাব ডেবিট ১,৫০০ টাকা

নগদান হিসাব ক্রেডিট ১,৫০০ টাকা

লেনদেনঃ মালিকের বাজার খরচ ব্যবসায় হতে পরিশোধ ১,০০০ টাকা ।
জাবেদা দাখিলাঃ

উত্তোলন হিসাব ডেবিট ১,০০০ টাকা

নগদান হিসাব ক্রেডিট ১,০০০ টাকা

লেনদেনঃ জীবন বিমার প্রিমিয়াম প্রদান ১,০০০ টাকা ।
জাবেদা দাখিলাঃ

উত্তোলন হিসাব ডেবিট ১,০০০ টাকা

নগদান হিসাব ক্রেডিট ১,০০০ টাকা

বিশেষ দ্রষ্টব্য: জীবন বিমার প্রিমিয়াম বলতে ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানের মালিকের জীবন বিমার প্রিমিয়াম বোঝায় ।

লেনদেনঃ আয়কর প্রদান ১,০০০ টাকা ।
জাবেদা দাখিলাঃ

উত্তোলন হিসাব ডেবিট ১,০০০ টাকা

নগদান হিসাব ক্রেডিট ১,০০০ টাকা

বিশেষ দ্রষ্টব্য: আয়কর বলতে ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানের মালিকের ব্যক্তিগত আয়কর বোঝায় ।

লেনদেনঃ মালিকের ঘর ভাড়া কারবার হতে দেওয়া হল ৫,০০০ টাকা ।
জাবেদা দাখিলাঃ

উত্তোলন হিসাব ডেবিট ৫,০০০ টাকা

নগদান হিসাব ক্রেডিট ৫,০০০ টাকা

লেনদেনঃ মালিকের ঘর ভাড়া ব্যবসায়ের ব্যাংক হিসাব হতে দেওয়া হল ৫,০০০ টাকা ।
জাবেদা দাখিলাঃ

উত্তোলন হিসাব ডেবিট ৫,০০০ টাকা

ব্যাংক হিসাব ক্রেডিট ৫,০০০ টাকা

লেনদেনঃ মালিকের ছেলের স্কুলের বেতন কারবার হতে দেওয়া হল ৫০০ টাকা ।
জাবেদা দাখিলাঃ

উত্তোলন হিসাব ডেবিট ৫০০ টাকা

নগদান হিসাব ক্রেডিট ৫০০ টাকা

লেনদেনঃ মালিকের গাড়ি মেরামত ১৫,০০০ টাকা ।
জাবেদা দাখিলাঃ

উত্তোলন হিসাব ডেবিট ১৫,০০০ টাকা

সেবা আয় হিসাব ক্রেডিট ১৫,০০০ টাকা

সূত্র: নবম-দশম শ্রেণি, হিসাববিজ্ঞান, পৃষ্ঠা নম্বর : ২৩

ব্যাখ্যা: এখানে মালিক সুবিধা গ্রহণ করছে, এজন্য উত্তোলন হিসাব ডেবিট হয়েছে, লেনদেন দেখে বোঝা যাচ্ছে যে এটি পণ্যদ্রব্য ক্রয় বিক্রয়কারী প্রতিষ্ঠান নয়, সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান, এজন্য এখানে সেবা আয় হিসাব ক্রেডিট হবে (বিক্রয় হিসাব ক্রেডিট হবে না) । উল্লেখ্য যে, এই লেনদেনটি দ্বারা হিসাব সমীকরণে প্রভাব দেখানো হলে, উত্তোলন হিসাব ডেবিট ১৫,০০০ টাকা-মালিকানা স্বত্ব হতে বিয়োগ হবে, সেবা আয় হিসাব ক্রেডিট ১৫,০০০ টাকা-মালিকানা স্বত্ব তে যোগ হবে ।

অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ লেনদেন

লেনদেনঃ ব্যাংক হতে উত্তোলন ১,০০০ টাকা ।
জাবেদা দাখিলাঃ

নগদান হিসাব ডেবিট ১,০০০ টাকা

ব্যাংক হিসাব ক্রেডিট ১,০০০ টাকা

ব্যাখ্যা: এটি একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ লেনদেন । অনেক শিক্ষার্থী লেনদেনটিতে উত্তোলন শব্দটি থাকার কারণে উত্তোলন হিসাব ডেবিট করে থাকে যেটা ভুল । ব্যাংক হতে উত্তোলন করার সময় মালিকের ব্যক্তিগত প্রয়োজন / নিজ প্রয়োজন উল্লেখ না থাকলে অফিসের প্রয়োজনে উত্তোলন করা হয়েছে ধরতে হবে । এখানে ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানের ক্যাশ বক্সে নগদ টাকার পরিমান বৃদ্ধি পাচ্ছে এজন্য নগদান হিসাব ডেবিট, অন্যদিকে ব্যাংক জমা টাকার পরিমান কমে যাচ্ছে এজন্য ব্যাংক হিসাব ক্রেডিট ।

লেনদেন: অফিসের প্রয়োজনে ব্যাংক হতে উত্তোলন ১,০০০ টাকা ।
জাবেদা দাখিলাঃ

নগদান হিসাব ডেবিট ১,০০০ টাকা

ব্যাংক হিসাব ক্রেডিট ১,০০০ টাকা

লেনদেনঃ নিজ প্রয়োজনে ব্যাংক হতে উত্তোলন ১,০০০ টাকা ।
জাবেদা দাখিলাঃ

উত্তোলন হিসাব ডেবিট ১,০০০ টাকা

ব্যাংক হিসাব ক্রেডিট ১,০০০ টাকা

লেনদেনঃ মালিকের জন্য চেক কাটা হল ১,০০০ টাকা ।
জাবেদা দাখিলাঃ

উত্তোলন হিসাব ডেবিট ১,০০০ টাকা

ব্যাংক হিসাব ক্রেডিট ১,০০০ টাকা

About admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *